বেলকুচি ওসি আনোয়ারুল ইসলাম অপরাধ নির্মূলে প্রশংসিত
১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ০৫:৪৭ অপরাহ্ন


  

  • বেলকুচি/ প্রসাশনিক বার্তা:

    বেলকুচি ওসি আনোয়ারুল ইসলাম অপরাধ নির্মূলে প্রশংসিত
    ০৮ অক্টোবর, ২০১৯ ০৯:৪০ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    জহুরুল ইসলাম: মাদক, জুয়া, সন্ত্রাস, জঙ্গি, নাশকতা মামলার সাজাপ্রাপ্ত ও ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি গ্রেপ্তারসহ সার্বিক আইনশৃঙ্খলা বিষয়ে দক্ষতার সঙ্গে কাজ করায় এক বছরে বেলকুচি থানা সকল মহলে প্রশংসিত হয়েছেন সিরাজগঞ্জের বেলকুচি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম। বুধবার (৯ অক্টোবর) ২০১৯ তারিখ তার বেলকুচিতে যোগদানের এক বছর হবে। গত নভেম্বর ২০১৮ সালে বেলকুচি থানার অফিসার ইনচার্জ হিসেবে দায়িত্ব্য গ্রহন করেন (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম। বেলকুচিতে যোগদানের পর থেকেই টিম বেলকুচিকে সাথে নিয়ে মাদক, ডাকাতি, ছিনতাই, চুরি, বাল্য বিয়ে, ইভটিজিং সহ সকল প্রকার অপরাধের সাথে যুদ্ধ ঘোষনা করেন। ইতিমধ্যে আইনশৃঙ্খলাসহ সার্বিক বিষয়ে অবদান রাখায় গত (২৫ আগষ্ট) সিরাজগঞ্জ পুলিশ লাইন ড্রিল সেডে মাসিক কল্যাণ সভায় সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার টুটুল চক্রবর্তী বিপিএম’র কাছ থেকে বিশেষ পুরস্কারে ভূষিত হয়েছিলেন তিনি। এছাড়াও ২০১৮ সালে ১৮ নভেম্বর সিরাজগঞ্জ জেলার শ্রেষ্ঠ ওসি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন বেলকুচি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম। সে সময় সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার (এসপি) কার্যালয়ের সভাকক্ষে মাসিক কল্যাণ সভায় পুলিশ সুপার (এসপি) টুটুল চক্রবর্তী এ উপলক্ষে ক্রেস্ট ও সম্মাননা স্মারক তুলে দেন ওসি আনোয়ারুল ইসলাম’র হাতে। উল্লেখ্য: বেলকুচি থানায় যোগদানের আগে পাবনা জেলার আটঘরিয়া থানায় সততা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব্য পালন করায় সেই সময়ে পাবনা জেলার শ্রেষ্ঠ ওসি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি। বগুড়া জেলায় জন্ম নেওয়া আনোয়ারুল ইসলাম বিখ্যাত লেখক এম.এ সামাদ এর সন্তান। ওসির কর্মকান্ড সম্পর্কে এলাকার শিক্ষক, সাংবাদিক, সুশীল সমাজ ও জনপ্রতিনিধি অনেকেই সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন বেলকুচি থানায় আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি পুর্বের যে কোন সময়ের চেয়ে অত্যান্ত ভাল। ওসির সততার গুনে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের সকল অপরাধ কর্মকান্ড কঠোর হস্তে দমন করে এলাকার শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে তিনি প্রশংসনীয় ভুমিকা পালন করছেন এমনটাই মনে করেন এলাকাবাসী। স্থানীয় লোকজন জানান, ইতি পূর্বে হাত বাড়ালেই রাস্তার অলিতে গলিতে প্রকাশ্যে মাদক পাওয়া যেত। বর্তমানে এই ওসি যোগদানের পর থেকে মাদকব্যবসায়ী ও মাদক সেবীদের এখন চোখে দেখা দায়। এলাকা ছেড়েছে মাদক ব্যবসায়ীরা। বেলকুচি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম সংবাদ কর্মিদের বলেন, বেলকুচি থানা এলাকার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে আমরা বদ্ধ পরিকর। থানা এলাকাকে শান্তির জনপদে পরিণত করতে এসপি মহোদয়ের নির্দেশনায় ও নেতৃত্বে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। জনগনের সহযোগিতা করলে চাইলেই মাদকদ্রব্য শূন্যের কৌটায় নামানো সম্ভব, মাদক ও জুয়ার সাথে জড়িয়ে মানুষ অপরাধের সাথে জড়িয়ে যায়। তাই টিম বেলকুচিকে সাথে নিয়ে মাদক বিরোধী যুদ্ধ অব্যাহত থাকবে। বেলকুচি প্রেসক্লাবের সভাপতি আলহাজ্ব গাজী সাইদুর রহমান জানান, বর্তমানে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবির আছে, বিগত সময়ের চেয়ে বেলকুচিতে জুয়া, বাল্য বিয়ে ও মাদকদ্রব্য নির্মূলে বেলকুচি থানার ওসির ভূমিকা অনেক প্রশংসনীয়। একজন চৌকস কর্মকর্তা হিসেবে থানা এলাকায় আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ওসি সাহেব অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। বেলকুচি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. নুরুল ইসলাম সাজেদুল জানান, সয়দাবাদ থেকে মুকুন্দগাঁতী পর্যন্ত রাস্তায় ডাকাতি ও ছিনতাইয়ের ঘটনা এখন শুন্যের কৌটায়। বর্তমানে বেলকুচি থানার (ওসি) আনোয়ারুল ইসলামের বিচক্ষনতার কারণে ডাকাতি, ছিনতাই, মাদকদ্রব্য সহ সকল অপরাধ কমানো সম্ভব হয়েছে।
    স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বেলকুচি ০৮ অক্টোবর, ২০১৯ ০৯:৪০ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 1645 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    বেলকুচি অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    বিশ্বকাপ ক্রিকেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    11992602
    ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ০৫:৪৭ অপরাহ্ন