রং তুলির আচঁরে ব্যস্ত সময় পার করছেন সিরাজগঞ্জের মৃৎ শিল্পীরা
১৮ অক্টোবর, ২০১৯ ০৭:১৫ অপরাহ্ন


  

  • সিরাজগঞ্জ/ অন্যান্য:

    রং তুলির আচঁরে ব্যস্ত সময় পার করছেন সিরাজগঞ্জের মৃৎ শিল্পীরা
    ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৪:৩৭ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    সোহাগ হাসান জয়: নরম কাদা-মাটি দিয়ে শৈল্পিক ছোঁয়ায় তিল তিল করে গড়ে তোলা দশভুজা দেবী দুর্গার প্রতিমায় ভরে উঠেছে পালপাড়ার প্রায় প্রতিটা বাড়ি। নানান রঙ আর তুলির আঁচরে ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে দেবীর প্রতিচ্ছবি। তাই যেনো ঘুম নেই পাল বাড়ির কারিগরদের। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব দূর্গা পুজা। এবছর সিরাজগঞ্জ জেলা সদরসহ উপজেলা গুলোতে প্রায় পাঁচ শতাধিক পুজা মন্ডপ তৈরী করা হচ্ছে।
    সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, জেলার কামারখন্দ উপজেলার ভদ্রঘাটের পালপাড়ায় জোরেশোরেই চলছে দূর্গা প্রতিমা তৈরির কাজ। সিরাজগঞ্জের বেশিরভাগ এলাকার পূজা মন্ডপই সাজে এই পাল বাড়ির প্রতিমায়। সেই লক্ষ্য নিয়েই কাজ করেন এখানকার প্রতিমা শিল্পীরা। হাতের নিপুণ কারিগরিতে একেকটি প্রতিমা গড়ে তোলে তারা। দেবী দূর্গাকে স্বাগত জানাতে প্রতিমা তৈরী ও মন্দির সাজসজ্জায় শিল্পীরা দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে চুক্তিতে এসে ব্যস্ত সময় পার করছেন। মার আগমনে প্রতিটি হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ঘরে ঘরে আনন্দের বন্যা বইছে। দেবীর আগমনে প্রতিমা শিল্পীরা এখন প্রতিমার গায়ের তুলির আঁচর দিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ব্যস্ত হয়ে পড়েছে মায়ের ভক্তরাও।
    ভদ্রঘাট এলাকার প্রতিমা কারিগর শ্রী কান্ত পাল বলেন, বর্তমানে প্রতিমা তৈরির উপকরণের দাম বেশি, ফলে প্রতিমা তৈরি করে খুব একটা লাভ হয় না। তারপরও পূর্বপুরুষের পেশা হিসেবে তারা প্রতিমা তৈরি করেন। একই এলাকার উজ্জল পাল বলেন, এখন প্রতিমা গড়ার কাজ প্রায় ৯০% শেষ। ফলে প্রতিমার রঙ্গের কাজ শুরু হয়েছে। রং এর তুলিতে সাজানো হচ্ছে প্রতিমাগুলো। 
    মৃৎ শিল্প কারিগর গোপিনাথ পাল বলেন, এবছর ২২টি প্রতিমার অর্ডার পেয়েছি। অর্ডার অনুযায়ী প্রতিমা তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। এখনও অর্ডার আসছে তবে এখন আর অর্ডার নেওয়া হচ্ছে না। যে প্রতিমাগুলোর কাজ শুরু করেছেন সেগুলোরই কাজ চলছে। তিনি আরো বলেন, এবার ১৫ থেকে ৫০ হাজার টাকা বিক্রি হচ্ছে প্রতিমা।
    তবে মৃৎ বা প্রতিমা শিল্পীরা বলছেন সরকারী বা বেসরকারী প্রতিষ্ঠান থেকে কোন সুযোগ সুবিধা না পাওয়ায় এশিল্প টিকে রাখা কঠিন হয়ে পড়েছে। সরকারী সুযোগ সুবিধা পেলে এশিল্পের প্রসার ঘটাতে পারবে বলে তারা আশাবাদী। তাই সরকারের সুদৃষ্টি কামনা করছেন প্রতিমা শিল্পীরা।
    এ ব্যাপারে সিরাজগঞ্জ জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সন্তোষ কুমার কানু বলেন, সিরাজগঞ্জ জেলা জুড়ে প্রায় পাচ শতাধিক মন্ডপে দূর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। সুষ্ঠু-সুন্দর ও উৎসবমুখর পরিবেশে এ বছর দূর্গাপূজা আয়োজনের জন্য এরইমধ্যে পূজা উদযাপন পরিষদের পক্ষ থেকে সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহন করা হয়েছে। 
    সিরাজগঞ্জ সদর থানার ওসি (ভারপ্রাপ্ত) মো: রফিকুল ইসলাম জানান, সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় এই উৎসব উদযাপনে জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশে পূজামন্ডপগুলোর সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ ও অন্যান্য সুবিধা নিশ্চিত করতে জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশের সাথে দফায় দফায় মতবিনিময় করা হচ্ছে। সুন্দর ও সুষ্ঠু ভাবে এবার পূজা উদযাপন হবে বলে তিনি জানান।

    স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, সিরাজগঞ্জ ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৪:৩৭ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 174 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    সিরাজগঞ্জ অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    বিশ্বকাপ ক্রিকেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    11689430
    ১৮ অক্টোবর, ২০১৯ ০৭:১৫ অপরাহ্ন