উল্লাপাড়ার বামনঘিয়ালা কমিউনিটি ক্লিনিকে কর্মকতার্রা থাকেন না ভাড়া করা লোক দিচ্ছে চিকিৎসা সেবা
১৮ অক্টোবর, ২০১৯ ০৭:২৬ অপরাহ্ন


  

  • উল্লাপাড়া/ অন্যান্য:

    উল্লাপাড়ার বামনঘিয়ালা কমিউনিটি ক্লিনিকে কর্মকতার্রা থাকেন না ভাড়া করা লোক দিচ্ছে চিকিৎসা সেবা
    ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৫:২৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    উল্লাপাড়া  প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার বামনঘিয়ালা কমিউনিটি ক্লিনিকটি চলছে ভাড়া করা লোক দিয়ে। এখানে নিয়োজিত কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার (সিএইচসিপি) ও স্বাস্থ্য সহকারী থাকেন অনুপস্থিত। জুলমাত হোসেন নামের এক ব্যক্তি মাসিক ৩ হাজার টাকা চুক্তিতে প্রায় ৭ বছর ধরে চালাচ্ছেন এই কমিউনিটি ক্লিনিক। স্থানীয় রোগীদেরকে তিনিই দিচ্ছেন চিকিৎসা সেবা। আর ক্লিনিকের ওষুধ দিতে জুলমাত রোগীদের কাছ থেকে ২ থেকে ৫ টাকা করে আদায় করছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। 

    উপজেলার বামনঘিয়ালা গ্রামের সোলেমান হোসেন, মোমেনা খাতুন ও সামছুন্নাহার অভিযোগ করেন, এই ক্লিনিকে নিয়োগ প্রাপ্ত সিএইচসিপি মোঃ আতিকুর রহমান ও স্বাস্থ্য সহকারী জোৎসা খাতুন দিনের পর দিন ক্লিনিকে অনুপস্থিত থাকেন। আতিকুর রহমান উপজেলার বিনায়েকপুর গ্রামের জুলমাত হোসেন নামের এক ব্যক্তিকে মাসিক ৩ হাজার টাকা চুক্তিতে এই ক্লিনিক পরিচালনার দায়িত্ব দিয়েছেন। তিনি একজন এসএসসি পাস ব্যক্তি এবং চিকিৎসা সেবা সংক্রান্ত তার কোন প্রশিক্ষন নেই। অথচ দীর্ঘদিন ধরে তিনি পূর্ণিমাগাঁতী ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের রোগীদেরকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। কোন ব্যবস্থাপত্র না লিখে রোগীদের সমস্যা মুখে মুখে শুনে ওষুধ দিয়ে থাকেন তিনি। এসব ওষুধ দিতে কারো কাছ থেকে ২ টাকা আবার কারো কাছ থেকে ওষুধ ভেদে ৫ টাকা করে নিয়ে থাকেন জুলমাত আলী। অভিযোগকারীরা আরো জানান, এই কমিউনিটি ক্লিনিকে সরকারি ভাবে যথেষ্ট পরিমান ওষুধ সরবরাহ করা হলেও প্রয়োজন অনুযায়ী লোকজন ওষুধ পাননা। পাননা প্রকৃত চিকিৎসা। 

     সরেজমিনে বামনঘিয়ালা কমিউনিটি ক্লিনিকে গেলে দেখা যায় ক্লিনিকটি বন্ধ রয়েছে। কিছুক্ষণ পর কথিত জুলমাত হোসেন এসে ক্লিনিক খোলেন। এসময় বেশ কয়েকজন রোগী চিকিৎসা সেবার জন্য অপেক্ষা করছিলেন। জুলমাত সিএইচসিপির আসনে বসে ক্লিনিকের নিয়ম অনুযায়ী রেজিস্ট্রারে রোগীদের নাম লিপিবদ্ধ করেন । এরপর রোগীদের সমস্যা শুনে টাকা নিয়ে ওষুধ দিতে শুরু করেন। স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা জুলমাতের পরিচয় জানতে চাইলে তিনি তার পরিচয় দিয়ে ৩ হাজার টাকায় সিএইচসিপির দায়িত্ব পালন করছেন বলে স্বীকার করেন। তিনি নিজেকে এসএসসি পাস বলে দাবি করেন। তবে চিকিৎসা সেবায় তার কোন প্রাতিষ্ঠানিক ডিগ্রি বা প্রশিক্ষণ নেই বলে জানান। কীভাবে রোগীদের ওষুধ দিচ্ছেন? প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, ৭ বছর ধরে এই ক্লিনিকে বসে রোগীদের সমস্যা শুনে ওষুধ দিচ্ছি। এতে এ পর্যন্ত কারো কোন সমস্যা হয়নি বরং স্থানীয় লোকজনের উপকারই হচ্ছে।থ সিএইচসিপি আতিকুর ও স্বাস্থ্য সহকারী জোৎসা খাতুন সম্পর্কে জানতে চাইলে জুলমাত জানান, মাঝে মাঝে তারা ক্লিনিকে এসে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করে যান। প্রকৃত পক্ষে তিনি একাই ক্লিনিকটি পরিচালনা করে থাকেন। রোগীদের কাছ থেকে টাকা নিচ্ছেন কেন? প্রশ্ন করলে জুলমাত বলেন, ক্লিনিকটি ঝাড়– দেওয়ার জন্য একজন লোককে রাখা হয়েছে। এ টাকা তাকে দেওয়া হয়। 

    এ ব্যাপারে উক্ত ক্লিনিকের কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার আতিকুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরে তিনি অসুস্থ ছিলেন। তিনি বগুড়ায় মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্রে সেভ প্লাস-এ ৬ মাস চিকিৎসাধীন ছিলেন। ফলে অন্য একজনকে ওই ক্লিনিকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তবে এখন তিনি সুস্থ। নিয়মিত অফিসে যাবেন বলে উল্লেখ করেন আতিকুর। 

    এ বিষয়ে ওই ক্লিনিকের পরিদর্শকের দায়িত্বে থাকা সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক শফিকুল ইসলাম ক্লিনিকে বহিরাগত লোক নিয়োগ দিয়ে চিকিৎসার বিষয়টি স্বীকার করেন। এ বিষয়ে তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকতার্ ও সিরাজগঞ্জের সিভিল সার্জনের কাছে অনেক বার লিখিত ভাবে জানিয়েছেন বলে উল্লেখ করেন শফিকুল। 

    এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকতার্ প্রশিক্ষণে থাকায় বার বার চেষ্টা করেও তার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। 

    এ বিষয়ে সিরাজগঞ্জ সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ জাহিদুল ইসলামের সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান, বিষয়টি আমি অবহিত হলাম। অবিলম্বে তদন্ত করে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

    রায়হান আলী, করেসপন্ডেন্ট(উল্লাপাড়া) ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৫:২৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 250 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    উল্লাপাড়া অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    বিশ্বকাপ ক্রিকেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    11689568
    ১৮ অক্টোবর, ২০১৯ ০৭:২৬ অপরাহ্ন