বিকাশ একাউন্ট নিয়ে আতঙ্কিত ব্যবহারকারীরা
১৮ অক্টোবর, ২০১৯ ০৮:১১ অপরাহ্ন


  

  • বেলকুচি/ অপরাধ:

    বিকাশ একাউন্ট নিয়ে আতঙ্কিত ব্যবহারকারীরা
    ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৩:৫৪ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    জহুরুল ইসলাম: লেনদেন এই বর্তমান যুগে অন্যতম মাধ্যম হিসাবে দিন দিন বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে বিকাশ। অতি সহজেই একস্থান থেকে অন্য স্থানে টাকা পয়সা অন্য স্থানে প্রেরণ করার ক্ষেত্রে বিকাশ ব্যবহার কারীর সংখ্যা দিনদিন বেড়েই চলছে। কিন্তু সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে বিকাশ একাউন্ট নিয়ে ব্যবহারকারীরা আতঙ্কের মধ্যে দিন পার করছে। প্রায়ই প্রতারক চক্রের ফাঁদে পড়ে অর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে বিকাশ একাউন্ট ধারীরা। ভূয়া বিকাশ হেল্প লাইনের পরিচয় দিয়ে তথ্য হালনাগাদের নামে বিকাশ একাউন্টের পিন কোড নিয়ে প্রতারক চক্র হাতিয়ে নিচ্ছে হাজার হাজার টাকা। এ নিয়ে সংশয়ের মধ্যে পরে এখন আর্থিক লেনদেন করতে বিকল্প পথ অবলম্বন করছেন অনেকেই। পত্রিকার এজেন্ট ব্যবসায়ী দৌলত মন্ডল এই প্রতিবেদককে জানান, আমার মোবাইল ফোনটা বাসায় রেখে নামাজ পড়তে যাই। নামজ শেষ করে বাসায় ফিরে দেখি কেউ আমার ফোনে কল দিয়েছে। পরক্ষনে আমি ফোনটা রিসিভ করার সাথে সাথে বিকাশ হেড অফিসের পরিচয় দিয়ে বলছে আপনার বিকাশ একাউন্ট ৬ মাস হল বন্ধ আছে। দয়া করে আপনার বিকাশ একাউন্টটা সচল করতে আপনার পিন কোডের যে গোপন নাম্বার রয়েছে তার শেষের ২টা নাম্বার আছে তা বলুন। আমি আপনার একাউন্ট একটিভ করে দিচ্ছি। আমার একাউন্টে তখন কিছু টাকা জমা ছিল। আমি তখন বুঝতে পারি এটা একটা প্রতারক চক্র। আমার টাকা হাতিয়ে নেয়ার জন্য ফন্দি করছে। ঐ বিকাশের কর্মকর্তাকে বলি আপনি তো প্রতারক চক্রে লোক। বিকাশ থেকে ফোন দিলে তো কখনও পিন নাম্বা চাইবে না। তখন উনি বলে ওঠেন আমি আপনার একাউন্ট বন্ধ করে দেব তথ্য না দিলে। এই বলে ফোন কেটে দেয়। তার পর থেকে আমার বিকাশ একাউন্টের ব্যালেন্স দেখতে পারি নাই। আর কোন লেনদেনও করতে পারি নাই। পরে আমি বিকাশ হেল্প লাইনে ফোন দিয়ে আমার একাউন্ট পুনরায় একটিভ করেছি। ২৪ ঘন্টা অতিবাহিত হওয়ার পর আমার একাউন্ট লেনদেন করতে পারছি। কিন্তু আমি খুবই এই বিষয়ে চিন্তিত যে প্রতারক চক্র যদি আমার বিকাশ একাউন্টের লেনদেন বন্ধ করে দিতে পারে তবে তারা আমার একাউন্টের টাকা পয়সা চুরি করে নিতে পারবে না এমন নিরাপত্তা দেবে কে? তিনি আরও বলেন, এ বিষয়ে আমি জানার জন্য বিকাশ হেল্প লাইনে ফোন দিয়ে জিজ্ঞেস করেছিলাম, যে যদি কোন প্রতারক চক্র যদি আমার একাউন্ট বন্ধ করে দেবার ক্ষমতা রাখে তাহলে টাকা চুরি করে নিতে পারবে কিনা? তারা আমাকে এই প্রশ্নের সঠিক উত্তর দিতে পারে নি। এখন আমি আমার বিকাশ একাউন্ট নিয়ে খুবই দুশ্চিন্তার মধ্যে আছি। শুধু আমিই না আমার মত বেলকুচির অনেকেই প্রাতারক চক্রের পাল্টায় পরে টাকা পয়সা হাতিয়ে নিচ্ছে। এই ব্যবসায়ের লেনদেন করতে বিকাশ একাউন্টটা খুবই প্রয়োজন ছিল । কিন্তু এখন আমার লেনদেনের জন্য বিকল্প পথ বের করতে হবে।
    স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বেলকুচি ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৩:৫৪ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 576 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    বেলকুচি অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    বিশ্বকাপ ক্রিকেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    11690026
    ১৮ অক্টোবর, ২০১৯ ০৮:১১ অপরাহ্ন