সলঙ্গায় ২ মন ধানে ১ জন শ্রমিক
১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ০৬:৪৯ অপরাহ্ন


  

  • রায়গঞ্জ/সলঙ্গা/ কৃষি ও খাদ্য:

    সলঙ্গায় ২ মন ধানে ১ জন শ্রমিক
    ১৯ মে, ২০১৯ ০১:৫৭ অপরাহ্ন প্রকাশিত

    সলঙ্গা প্রতিনিধি ঃ আবহাওয়া অনুকুলে আর বেশীর ভাগ খেতের ধান এক সাথে পেকে যাওয়ায় সলঙ্গায় ধান কাটা শ্রমিক নিয়ে সংকটে পড়েছে কৃষকেরা। থানার সর্বত্রই ইরি-বোরো ধান কাটা প্রায় শেষ পর্যায়ে এলেও ধান কাটা শ্রমিক যেন সোনার হরিণ বলে মন্তব্য করেছেন আবাদীরা। ৫০০-৫৫০ টাকা দরের ২ মন ধান বিক্রি করে ৮০০-১০০০ টাকা একজন শ্রমিক কে দিতে হচ্ছে। এদিকে ঝড়ো হাওয়ার ভয় আর দিন মজুর সংকটে শেষ পর্যায়ে এসেও জমির পাকা ধান নিয়ে অনেকেই বিপাকে পড়েছেন। নববধু থেকে শুরু করে বাড়ীর সকল বয়সী নারী-পুরুষেরা ধান ঘরে তোলা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। নিন্ম আয়ের ও দরিদ্র শ্রেণীর লোকেরা গ্রামে দিন মজুরের কাজ না করে বেশী টাকার আশায় শহরে গিয়ে রিক্সা, ভ্যান, লেবার, রাজমিস্ত্রী সহ বিভিন্ন কাজে জড়িয়ে পড়ছে বলে শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে। বর্তমানে জন প্রতি মজুরী দিতে হচ্ছে ৮০০-১০০০ টাকা আর বিঘা প্রতি চুক্তি ভিত্তিক দিতে হচ্ছে ৩ হাজার হতে সাড়ে ৩ হাজার টাকা। এলাকার বিভিন্ন আবাদী ও কৃষকের সাথে আলাপ করে জানা যায়, বেশী শ্রম মুল্য আর উৎপাদন খরচ মিলিয়ে এক মন ধান বিক্রি করলে কিছুই থাকে না। আমরা কিভাবে বেঁচে থাকবো ? ফলে ন্যায্য মুল্য থেকে বঞ্চিত কৃষক কুলের বুক জুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে হতাশা আর ক্ষোভ। 

    সিনিয়র রিপোর্টার/ চৌহালী ১৯ মে, ২০১৯ ০১:৫৭ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 651 বার দেখা হয়েছে।
    পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
    রায়গঞ্জ/সলঙ্গা অন্যান্য খবরসমুহ
    সর্বশেষ আপডেট
    বিশ্বকাপ ক্রিকেট
    নিউজ আর্কাইভ
    ফেসবুকে সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ
    বিজ্ঞাপন
    সিরাজগঞ্জ কণ্ঠঃ ফোকাস
    • সর্বাধিক পঠিত
    • সর্বশেষ প্রকাশিত
    বিজ্ঞাপন

    ভিজিটর সংখ্যা
    11993236
    ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ০৬:৪৯ অপরাহ্ন