বিলুপ্তির পথে তাড়াশের ইমামবাড়ি ||চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ওয়েবসাইটে স্বাগতম | যোগাযোগ : ০১৭৭৯-১১৭৭৪৪
২৪ জুন, ২০১৯ ০২:৫১ অপরাহ্ন       রেজিষ্টার করুন | লগইন    

তাড়াশ: বিচিত্র দুনিয়া

বিলুপ্তির পথে তাড়াশের ইমামবাড়ি
স্টাফ করেস্পন্ডেন্ট, তাড়াশ ১০-০৫-২০১৯ ০২:৫৬ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ


ফাইল ছবি

আশরাফুল ইসলাম রনি: সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলায় প্রায় ৫শত বছরের পুরনো ইসলামের বানীবাহক শাহ ইমাম (র.) এর ইমাম বাড়িটি বিলুপ্তির পথে। আর ইমাম বাড়িটি পুর্ননির্মানের দাবী জানিয়েছেন স্থানীয় এলাকাবাসী। তাছাড়া ইমামবাড়িটির অনেক জায়গা স্থানীয়রা দখল করে নিয়েছে বলেও জানা গেছে। উপজেলার বারুহাস ইউনিয়নের বারুহাস গ্রামে অবস্থিত প্রায় ৫শত বছরে পুরনো ইমাম বাড়ির একটি মসজিদ সম্পুর্নরুপে ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। শুধু গম্বুজের মতো ছোট একটি ঘর এখনো ঐতিহাসিক চিহৃ হিসেবে দন্ডায়মান থাকলেও তা একটি বৃক্ষের নিচে পড়ে রয়েছে। জানা যায়, সম্রাট জাহাঙ্গীর সিংহাসন আরোহনের পর সরাটের বিভিন্ন অঞ্চল পরিদর্শন করেন। সেই সময়ে চলনবিল এলাকায় ব্যাসপরগনা পরিদশনের সময় বারুহাস গ্রামে এই অবস্থান করেছিলেন। সেই স্থানে পানিতে ঘেরা একটি উম্মুক্ত ভিটায় জুব্বা-পাগড়ীপরা সাথী সঙ্গীসহ শাহ ইমাম (র.) কে লক্ষ করে স¤্রাটের জলযান সেখানে ভিড়ানো হয়। শাহ ইমাম (র.) এর জম্মস্থান ইয়ামেনে। তিনি বাংলাদেশে আসার পর চলনবিলের নির্ভৃত পল্লী বারুহাস গ্রামে আসীন হন। সেই সময়ে এই এলাকার অধিবাসীরা ছিল হিন্দু সম্প্রদায়ের। তিনি তাদের মধ্য ইসলামের বানী ও আদর্শ প্রচার করে অনেককে ইসলাম গ্রহন করান। তিনি চলনবিলের উত্তর ও মধ্যম স্থানটিকে ইসলাম প্রচারের স্থান হিসেবে বেছে নেন।

এলাকাবাসীর দাবি ইমামবাড়িটির জায়গাগুলো উদ্ধার করে স্থাপনাগুলো পুর্ণনির্মান করে শাহ ইমাম (র.) এর সৃতি সংরক্ষণ করার।


১০-০৫-২০১৯ ০২:৫৬ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 403 বার দেখা হয়েছে।

পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ

চৌহালী নিউজঃ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

নির্বাচিত খবরসমুহ
তাড়াশ : আরো খরবসমুহ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত
ফেসবুকে চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ফোকাস
বিজ্ঞাপন

স্পন্সরড অ্যাড

ভিজিটর সংখ্যা
100
২৪ জুন, ২০১৯ ০২:৫১ অপরাহ্ন