উল্লাপাড়ায় ইউপি সদস্যর বিরুদ্বে সরকারি অনুদান দেয়ার কথা বলে লাখ লাখ টাকা আত্নসাতের অভিযোগ||চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ওয়েবসাইটে স্বাগতম | যোগাযোগ : ০১৭৭৯-১১৭৭৪৪
১৯ মার্চ, ২০১৯ ০৬:১০ পূর্বাহ্ন       রেজিষ্টার করুন | লগইন    

উল্লাপাড়া: অপরাধ

উল্লাপাড়ায় ইউপি সদস্যর বিরুদ্বে সরকারি অনুদান দেয়ার কথা বলে লাখ লাখ টাকা আত্নসাতের অভিযোগ
নিউজরুম ১২-০৩-২০১৯ ০৪:৪২ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ


ফাইল ছবি

উল্লাপাড়া  প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার সলপ ইউপি সদস্য সুমাইয়া পারভীনের বিরুদ্বে অসহায় দুঃস্থদের সরকারী নানা অনুদান ও কার্ড দেয়ার কথা বলে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় প্রতারিত দুঃস্থরা বিচারদাবী করে সোমবার দুপুরে স্থানীয় সংসদ সদস্য,সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক সহ প্রশাসনের বিভিন্ন দফতর বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করে উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে এ বিষয়ে অভিযোগ দায়ের করেছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ সময় প্রতারিতদের অভিযোগটি আমলে নিয়ে সেটি উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকতাকে তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছে। 

প্রতারিত বড়হর ইউপি সদস্য মোছাঃ রুমি বেগম অভিযোগ করেন, প্রায় এক বছর আগে সলপ ইউপি সদস্য সুমাইয়া পারভীন তার নিকট আত্মীয় বড়হর গ্রামের শাহাদাৎ হোসেন ও মোঃ সবুজ কে দিয়ে বড়হর মধ্যপাড়া,দক্ষিণপাড়া সহ কয়েকটি গ্রাম থেকে অসহায় দুঃস্থদের সরকারী অনুদানের বয়স্কভাতা,বিধবাভাতা,প্রতিবন্ধী ভাতা,সেলাইমেশিন ও বিনা মূল্যের ঘর দেওয়ার কথা বলে প্রায় শতাধিক লোকের কাছে  ৪ থেকে ১০ হাজার টাকা করে প্রায় ৫ লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। দুঃস্থরা বিভিন্ন সমিতি এনজিও থেকে ঋন করে এসব টাকা তাদের দিলেও কোন অনুদানের সুবিধা পায়নি। তাদের কাছে দুঃস্থরা টাকা ফেরত চাইলে তারা কোন প্রকার টাকাও ফেরত দেয়নি। উল্টো প্রতারিতরা টাকা ফেরত চেয়ে নানা ভাবে হয়রানির শিকার হচ্ছে।

বড়হর মধপাড়া মহল্লার রানু খাতুন, হাজেরা খাতুন, আলেয়া বেগম,রোকেয়া খাতুন সহ অনেকেই জানান, ইউপি সদস্য সুমাইয়া পারভীন তার লোক দিয়ে আমাদের ভুল বুঝিয়ে বিভিন্ন সরকারি অনুদানের কথা বলে টাকা নিয়েছে। সেই সরকারি অনুদানের ভাতা, কার্ড আমরা এখনো পাইনি। টাকা চাইলেও টাকা দিচ্ছে না। এ নিয়ে আমরা ইউএনওর কাছে লিখিত অভিযোগ করেছি। আমরা এর বিচার চাই।

বড়হর মধ্যপাড়া গ্রামের রাশিদা বেগম জানান, আমার ছেলের মামলা নিষ্পত্তি করে দেয়ার কথা বলে বিষয়ে  ইউপি সদস্য সুমাইয়া পারভীন  ২লাখ ৪০ হাজার টাকা দাবী করেন। সে নিজেকে যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের আত্নীয় পরিচয় দিয়ে মামলার কাগজ ও টাকা নিয়ে তার কোন কাজই করেনি। সাংবাদিকদের কাছে এ বিষয়ে অভিযোগ করতে গিয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন তিনি। তিনি বলেন টাকা চাইনা। আমার ছেলের মামলার কাগজটি ফেরত চাই। এ নিয়ে তিনি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে অভিযোগ করেছেন বলে উল্লেখ করেন। 

ইউপি সদস্য সুমাইয়া পারভীনের নামে দুঃস্থদের কাছ থেকে নানা অনুদান দেয়ার কথা বলে টাকা আদায়ের কথা স্বীকার করে বড়হর গ্রামের শাহাদৎ হোসেন ও সবুজ হোসেন জানান,তারা এই এলাকা থেকে প্রায় ৫ লক্ষাধিক টাকা আদায় করে ইউপি সদস্য সুমাইয়া পারভীনকে দিয়েছেন। দুঃস্থরা সুবিধা না পেয়ে টাকা ফেরত চেয়ে তাদের উপর ব্যাপক চাপ দিচ্ছে। আমরা ইউপি সদস্য সুমাইয়ার কাছ থেকে ইতিমধ্য প্রায় ৩ লক্ষাধিক টাকা আদায় করে দুঃস্থদের পরিশোধ করেছি। বাকী টাকাও দিয়ে দিব। তারা উল্লেখ করেন,দুঃস্থরা ইউএনও কাছে লিখিত অভিযোগ করেছে। তিনি আমাদের ডেকেছিলেন। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে তিনি আমাদেরকে দুঃস্থদের টাকা ফেরত দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে। 

এ বিষয়ে মুঠোফোনে কথা হলে সলপ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য সুমাইয়া পারভীন জানান,আমি ব্যক্তিগত কারো কাছ থেকে কোন সরকারী সুবিধা দেয়ার কথা বলে টাকা পয়সা নেইনি। আমার নাম দিয়ে সুবিধা দেয়ার কথা বলে কেউ টাকা পয়সা নিলে এ জন্য আমি দায়ী নয়। আমার প্রতিপক্ষ একটি মহল এ ঘটনায় আমাকে অন্যয়ভাবে জড়াচ্ছে।  

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আরিফুজ্জামান জানান,দুঃস্থরা তার কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে মৌখিক ও লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। বিষয়টি উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকতাকে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তদন্তপূর্বক জড়িতদের বিরুদ্বে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


১২-০৩-২০১৯ ০৪:৪২ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 807 বার দেখা হয়েছে।

পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ

চৌহালী নিউজঃ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

নির্বাচিত খবরসমুহ
উল্লাপাড়া : আরো খরবসমুহ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত
ফেসবুকে চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ফোকাস
বিজ্ঞাপন

স্পন্সরড অ্যাড

ভিজিটর সংখ্যা
100
১৯ মার্চ, ২০১৯ ০৬:১০ পূর্বাহ্ন