উল্লাপাড়ার উধুনিয়া ইউনিয়নে কর্মসৃজন কর্মসূচি প্রকল্পে ব্যাপক অনিয়ম ||চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ওয়েবসাইটে স্বাগতম | যোগাযোগ : ০১৭৭৯-১১৭৭৪৪
১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৫:৪৯ অপরাহ্ন       রেজিষ্টার করুন | লগইন    

উল্লাপাড়া: অপরাধ

উল্লাপাড়ার উধুনিয়া ইউনিয়নে কর্মসৃজন কর্মসূচি প্রকল্পে ব্যাপক অনিয়ম
করেসপন্ডেন্ট, উল্লাপাড়া ১৮-১১-২০১৮ ০৬:৫৯ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ


ফাইল ছবি

উল্লাপাড়া প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার উধুনিয়া ইউনিয়নে ত্রাণ ও দুর্যোগ অধিদপ্তরের বাস্তবায়িত ৪০ দিনের কর্মসৃজন কর্মসূচি প্রকল্পের বিভিন্ন প্রকল্পে ব্যাপক অনিয়ম দূর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ইউপিতে বরাদ্দকৃত শ্রমিকের অধেক শ্রমিক দিয়ে বিভিন্ন প্রকল্পে কাজ করিয়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ প্রকল্প বাস্তবায়নকারীদের বিরুদ্ধে।

জানা যায়,উপজেলার উধুনিয়া ইউনিয়নে ৪০ দিনের কর্মসৃজন কর্মসূচির ৩টি প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য ১৪৫ জন শ্রমিক বরাদ্দ দেয়া হয়। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় কাঁচাসড়ক মেরামতের জন্য কাগজ কলমে ১৪৫ জন শ্রমিক থাকলেও প্রকল্প গুলো ঘুরে দেখা যায় ভিন্নচিত্র। ইউনিয়নের গজাইল গ্রামে কর্মসৃজন কর্মসূচি প্রকল্পেরর কাজের জন্য ৭৫ জন শ্রমিকের কথা বললেও সেখানে কাজ করছে ৬১ জন শ্রমিক। ইউনিয়নের তেলিপাড়া গ্রামে ৩০ জন শ্রমিকের কাজ দেখানো হলেও বাস্তবে সেখানে কোন শ্রমিক কাজ করছে না। তবে ওই এলাকার ইউপি সদস্য দেবেন্দ্র নাথ চিনির দাবি তেলিপাড়ার বরাদ্দকৃত কাজের শ্রমিক গুলো মশেসপুর গ্রামের প্রকল্পে কাজ করছে।মহেসপুর গ্রামে কর্মসৃজন কর্মসূচি প্রকল্পের কাজে গিয়ে দেখা যায়, বরাদ্দকৃত ৪০ জনের মধ্যে অনুপস্থিত ৫ জন। ইউপি সদস্য দেবেন্দ্র নাথের দাবী করা তেলিপাড়া প্রকল্পের সেই ৩০ জন শ্রমিককে এই প্রকল্পে পাওয়া যায়নি। এই প্রকল্পের তদারকির দায়িত্বে থাকা ইনজামুল হক মন্টু জানান, আমার এখানে ৪০ জন শ্রমিক নিয়মিত কাজ করে। এর বাইরে কোন শ্রমিক এখানে কাজ করে না। অন্য প্রকল্পের শ্রমিক এখানে কাজ করে কি না জানতে চাইলে তিনি উল্লেখ করে বলেন অন্য প্রকল্পের শ্রমিকের কাজ না করার বিষয়টি চেয়ারম্যান বলতে পারবে।

এই ইউনিয়নে ৪০দিনের কর্মসৃজন কর্মসূচি প্রকল্পে অনিয়ম দূর্নীতি প্রসঙ্গে জানতে চাইলে উল্লাপাড়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তাবায়ন কর্মকতা মো.মাহবুবুর রহমান ভূঁইয়া জানান,যেসব প্রকল্পের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে সেসব প্রকল্পে অনুপস্থিত শ্রমিকের হাজিরার বিল দেয়ার সময় কেটে দেয়া হবে। একই সাথে সকল প্রকল্প তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শ্রমিকদের অভিযোগ শুক্র শনিবার সরকারী নিয়ম অনূর্যায়ী ছুটি থাকলেও ইউপি চেয়ারম্যান তাদের বাধ্য করে ছুটির দিনেও কাজ করাচ্ছেন। অথচ নিয়ম অনূর্যায়ী এই দু'দিনের মজুরী শ্রমিকরা পাবে না।

স্থানীয়দের অভিযোগ,এই প্রকল্প বাস্তবায়নের শুরুর প্রথম থেকেই ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্যরা মিলে বরাদ্দকৃত শ্রমিকের বিপরীতে কম শ্রমিকদিয়ে কাজ করিয়ে সরকারী বরাদ্দের টাকা নিজেদের মধ্যে ভাগ বিটোয়ারা করে নিচ্ছে।

এ বিষয়ে মুঠোফোনে কথা হলে উধুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো.আব্দুল জলিল জানান,আমি দলীয় প্রোগ্রামে বাইরে আছি। প্রকল্পে শ্রমিক কম থাকার কথা স্বীকার করে তিনি তার পরিষদের সদস্য আব্দুল কুদ্দুসের সাথে যোগাযোগ করার কথা বলেন।


১৮-১১-২০১৮ ০৬:৫৯ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 345 বার দেখা হয়েছে।

পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ

চৌহালী নিউজঃ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

নির্বাচিত খবরসমুহ
উল্লাপাড়া : আরো খরবসমুহ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত
ফেসবুকে চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ফোকাস
বিজ্ঞাপন

স্পন্সরড অ্যাড

ভিজিটর সংখ্যা
100
১৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৫:৪৯ অপরাহ্ন