উল্লাপাড়ায় মাদ্রাসা ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা ||চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ওয়েবসাইটে স্বাগতম | যোগাযোগ : ০১৭৭৯-১১৭৭৪৪
১৯ নভেম্বর, ২০১৮ ০৮:০৭ অপরাহ্ন       রেজিষ্টার করুন | লগইন    

উল্লাপাড়া: অপরাধ

উল্লাপাড়ায় মাদ্রাসা ছাত্রীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা
করেসপন্ডেন্ট, উল্লাপাড়া ২২-১০-২০১৮ ০৬:৪৩ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ


অভিযুক্ত আব্দুল ওহাব

রায়হান আলীঃ উল্লাপাড়ায় মাদ্রাসা ছাত্রীর শ্লীলতাহানির ঘটনা গ্রাম্য শালিসের নামে ৫০ হাজার টাকা নিয়ে ধামাচাপা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। রোববার ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম বামনগ্রাম দাখিল মাদ্রাসায়। এ নিয়ে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

জানা যায়, উপজেলার বলাইগাঁতী গ্রামের আবুল কালাম আজাদের মেয়ে পশ্চিম বামনগ্রাম দাখিল মাদ্রাসার ৭ম শ্রেণির পড়–য়া মেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে ক্লাসে আসে। এসময় তাকে একা পেয়ে ক্লাসরুমে জোড়পূর্বক শ্লীলতাহানির চেষ্টা এবং মুঠোফোনে আপত্তিকর ছবি তোলে মোহনপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য পশ্চিম বামনগ্রামের হাছান আলীর মাদক বিক্রেতা বখাটে পুত্র আব্দুল ওয়াহাব (১৮) ও তার দুই সহযোগি একই গ্রামের মতিয়ার রহমানের ছেলে মাসুদ রানা ও আঁচলগাতী গ্রামের আব্দুল খালেকের পুত্র সমুন। তারা ওই ছবি দিয়ে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ব্লাকমেইল করার চেষ্টা করে। পরবর্তীতে বিষয়টি ওই ছাত্রীর পরিবার ও গ্রামবাসীদের মাঝে জানাজানি হয়।

এক পর্যায়ে ছাত্রীর পরিবার থানায় অভিযোগ করতে চাইলে ইউপি সদস্য হাছান আলী প্রভাব বিস্তার করে ছাত্রীর পরিবারকে ভয়ভীতি দেখিয়ে সবকিছু ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে। স্থানীয় এলাকাবাসীদের চাপে রোববার সকালে বিষয়টি নিয়ে পশ্চিম বামনগ্রাম মাদ্রাসায় ওই ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে গ্রাম্য শালিস বসানো হয়। শালিসে ওই মাদ্রাসার পরিচালনা কমিটির সভাপতি রওশন আলী, গ্রাম্য প্রধান রফিকুল ইসলাম, আব্দুল মান্নান, ওমর ফারুক বাবু, ফারুক হোসেন, সাবেক মেম্বর নজরুল ইসলাম ও মাদ্রাসার শিক্ষকরা অংশ নেয় বলে জানা গেছে। তারা শালিসে সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে অভিযুক্ত বখাটেদের মাদ্রাসা ছাত্রীর শ্লীলতাহানির চেষ্টার শাস্তিস্বরপ তার হাতে পায়ে ধরে ক্ষমা প্রার্থনা ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

জরিমানার অর্থ শালিসকারী প্রধানদের কাছে জমা রয়েছে। অন্যদিকে কোন অভিযোগ বা মামলা করবে না মর্মে ওই মাদ্রাসা ছাত্রীর অভিভাবকের কাছে থেকে স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়া হয়েছে বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে। উল্লেখ্য ইউপি সদস্য হাছান আলীর বখাটে পুত্র আব্দুল ওয়াহাবের বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসাসহ নানা আপত্তিকর অভিযোগ রয়েছে। মাদকসহ গ্রেফতার হয়ে জেলহাজতে ছিল সে। একই সাথে তার বিরুদ্ধে অন্য অভিযোগে মামলা হয়েছিল। এ বিষয়ে লাহিড়ী মোহনপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ মক্কা জানান লোকমুখে শুনেছি আমাকে কেউ জানায়নি।


২২-১০-২০১৮ ০৬:৪৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 584 বার দেখা হয়েছে।

পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ

চৌহালী নিউজঃ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

নির্বাচিত খবরসমুহ
উল্লাপাড়া : আরো খরবসমুহ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত
ফেসবুকে চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ফোকাস
বিজ্ঞাপন

স্পন্সরড অ্যাড

ভিজিটর সংখ্যা
100
১৯ নভেম্বর, ২০১৮ ০৮:০৭ অপরাহ্ন