সিরাজগঞ্জে বিয়ের প্রলোভনে ডাক্তার কর্তৃক মেডিকেল কলেজ ছাত্রীর সম্ভ্রম হরণ||চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ওয়েবসাইটে স্বাগতম | যোগাযোগ : ০১৭৭৯-১১৭৭৪৪
১২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৯:১৩ অপরাহ্ন       রেজিষ্টার করুন | লগইন    

সিরাজগঞ্জ: অপরাধ

সিরাজগঞ্জে বিয়ের প্রলোভনে ডাক্তার কর্তৃক মেডিকেল কলেজ ছাত্রীর সম্ভ্রম হরণ
নিউজরুম ১১-০৯-২০১৮ ০৩:০১ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ


ফাইল ছবি

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সিরাজগঞ্জে বেসরকারী নর্থ বেঙ্গল মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগের লেকচারার ডা. তুহিন নেপাল থেকে পড়তে আসা একই কলেজের ৪র্থ বর্ষের এক ছাত্রীর সম্ভ্রম হরণ করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ বরাবর নালিশ করেছে। এ ঘটনার পর পুলিশ রবিবার বিকেলে ডা. তুহিনকে শহরের ধানবান্ধি মহল্লার তার ভাড়া বাসা থেকে সিরাজগঞ্জ সদর থানা হেফাজতে নিয়ে এসেছে। এঘটনায় সোমবার দুপুরে নর্থ বেঙ্গল মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. এসএম আকরাম হোসেন তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন। 

 

নর্থ বেঙ্গল মেডিকেল কলেজের একটি সূত্র জানায়, লেখাপড়ার সুবাদে ডা. তুহিনের সাথে ওই ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক পর্যায়ে ডা. তুহিন ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। সম্প্রতি ওই ছাত্রী বিয়ের জন্য চাপ দিলে ডা. তুহিন নানা টালবাহানা শুরু করে। শুক্রবার দুপুরে এনিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে কলেজে উভয়ের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। বিকেলে ওই ছাত্রী ডা. তুহিনের বাসায় গিয়ে আবারো বিয়ের জন্য চাপ দেয়। এসময় ডা. তুহিন ও তার স্ত্রী ছাত্রীকে মারপিট করে বাড়ি থেকে বের করে দেন। এ ঘটনার পর রবিবার বিকেলে আবারো ওই ছাত্রী ডা. তুহিনের বাড়ি গেলে একই ঘটনার পুনরাবৃতি ঘটে। এসময় ওই ছাত্রী পুলিশ ও কলেজ অধ্যক্ষকে জানালে বিষয়টি অবগত করলে পুলিশ ডা. তুহিনকে থানায় নিয়ে যায়। এ ঘটনায় নর্থ বেঙ্গল কলেজের শিক্ষার্থীদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। শিক্ষার্থীরা ওই শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবী করেছেন। 


এ ব্যাপারে সোমবার বিকেলে সিরাজগঞ্জ সদর থানা হেফাজতে ডা. তুহিনের সাথে কথা বলতে গেলে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি। নর্থ বেঙ্গল মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. এসএম আকরাম হোসেন বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আশা করি দ্রুততম সময়ের মধ্যে সবকিছু জানা যাবে। 


সিরাজগঞ্জ সদর থানার ওসি(তদন্ত) রফিকুল ইসলাম বলেন, অভিযুক্ত ডাক্তারকে থানায় আনা হয়েছে। মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ বিষয়টি তদন্ত করে দেখছেন। তদন্তের পর কোন অভিযোগ দেয়া হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


১১-০৯-২০১৮ ০৩:০১ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 416 বার দেখা হয়েছে।

পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ

চৌহালী নিউজঃ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

নির্বাচিত খবরসমুহ
সিরাজগঞ্জ : আরো খরবসমুহ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত
ফেসবুকে চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ফোকাস
বিজ্ঞাপন

স্পন্সরড অ্যাড

ভিজিটর সংখ্যা
100
১২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৯:১৩ অপরাহ্ন