যৌতুকের দাবিতে শাহজাদপুরে এক গৃহ বধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ||চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ওয়েবসাইটে স্বাগতম | যোগাযোগ : ০১৭৭৯-১১৭৭৪৪
১২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৭:৫৬ অপরাহ্ন       রেজিষ্টার করুন | লগইন    

শাহজাদপুর: অপরাধ

যৌতুকের দাবিতে শাহজাদপুরে এক গৃহ বধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ
সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, শাহজাদপুর ২৭-০৮-২০১৮ ০৭:২৫ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ


ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক : সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর পৌর এলাকার দ্বারিয়াপুর মন্ডলপাড়া মহল্লায়  যৌতুকের দাবিতে সুবর্না মোস্তফা ওরফে  মিতু আক্তার (২১) নামে এক গৃহবধূকে বিয়ের মাত্র দেড় বছরের মাথায় স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনেরা পিটিয়ে ও শ্বাস রোধ করে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল রোববার সকালে ওই গৃহবধূর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। মিতু আক্তার উল্লাপাড়া চরশ্রীপলগাতি গ্রামের গোলাম মোস্তফার মেয়ে ও রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারের কারারক্ষী মনিরুলের স্ত্রী। শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ খাজা গোলাম কিবরিয়া জানান, এ ঘটনার পর থেকে গৃহবধূর স্বামী, শ্বশুর, শাশুড়িসহ বাড়ির সবাই পলাতক রয়েছেন। লাশ উদ্ধারের সময় তাদের ঘরে তালা লাগানো ছিল। ‘ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন হাতে এলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে’ বলে জানান অফিসার ইনচার্জ। প্রতিবেশীরা জানান, মিতুর শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে মাঝে মধ্যেই নির্যাতন করত। মনিরুল ঈদের ছুটিতে বাড়িতে এলে যৌতুক নিয়ে তাদের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। এরই একপর্যায়ে গত শনিবার সন্ধ্যায় স্বামী মনিরুল মিতুকে পিটিয়ে হত্যা করে ঘরে তালা দিয়ে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। পরে প্রতিবেশীরা টের পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। মিতু আক্তারের বাবা গোলাম মোস্তফা জানান, দেড় বছর আগে শাহজাদপুর দারিয়াপুর মন্ডলপাড়া গ্রামের শওকত মন্ডলের ছেলে মনিরুলের সঙ্গে বিয়ে হয় মিতুর। বিয়ের সময় ৬ লক্ষ টাকা ও ১০ ভরি স্বর্ণের গয়না দেওয়া হয় মিতুর স্বামীকে ।  বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় বাবার বাড়ি থেকে ১টি মোটর সাইকেল ও আরো টাকা আনার জন্য মিতুকে বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। স্বামী মনিরুল বিয়ের পর থেকেই তার ওপর েেযৗতুকের মোটর সাইকেলের জন্য নানাভাবে নির্যাতন করে আসছিল। নির্যাতনে অতীষ্ঠ হয়ে বেশিরভাগ সময় মিতু বাবার বাড়িতে থাকত। ঈদের ছুটিতে মনিরুল বাড়িতে এসে বাবাকে পাঠিয়ে দেয় স্ত্রীকে বাড়িতে আনার জন্য। শ্বশুর এর সংগে মিতু স্বামীর বাড়িতে চলে আসে। ঈদের পরন থেকেই েেযৗতুকের জন্য নির্যাতন চালিয়ে আসছল। শনিবার (২৫ আগস্ট) সন্ধ্যায় রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়ার   একপর্যায়ে মিতুকে তার স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন পিটিয়ে ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। মিতুর খালু মো. আব্দুর রশিদ জানান, শ্বশুর বাড়ির লোকজন মিতুকে নির্যাতন করত। মেয়ের সুখের কথা ভেবে বিয়ের কথা গোপন রেখে মিতুর স্বামীকে পুলিশে চাকরি দেওয়া হয়। ছুটি নিয়ে মনিরুল যখনই বাড়িতে আসত মিতুর ওপর নির্যাতন চালাত। এ ব্যাপারে শাহজাদপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছ।  তার মৃত্যু নিয়ে এলাকায় বইছে নানা জল্পনা-কল্পনা। 


২৭-০৮-২০১৮ ০৭:২৫ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 487 বার দেখা হয়েছে।

পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ

চৌহালী নিউজঃ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

নির্বাচিত খবরসমুহ
শাহজাদপুর : আরো খরবসমুহ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত
ফেসবুকে চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ফোকাস
বিজ্ঞাপন

স্পন্সরড অ্যাড

ভিজিটর সংখ্যা
100
১২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৭:৫৬ অপরাহ্ন