সাংবাদিকদের ওপর হামলাকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে: হাছান মাহমুদ||চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ওয়েবসাইটে স্বাগতম | যোগাযোগ : ০১৭৭৯-১১৭৭৪৪
১৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১০:৩০ পূর্বাহ্ন       রেজিষ্টার করুন | লগইন    

কাজিপুর: অন্যান্য

সাংবাদিকদের ওপর হামলাকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে: হাছান মাহমুদ
নিউজরুম ০৮-০৮-২০১৮ ০৫:৫৯ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ


ফাইল ছবি

সিনিয়ন স্টাফ করেসপন্ডেন্টঃ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ছাত্রদের আন্দোলনে ঢুকে যারা সাংবাদিকদের ওপর হামলা করেছে, তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

আজ বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৮৮তম জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে এ আলোচনা সভার আয়োজন করে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট। সংগঠনের উপদষ্টো লায়ন চিত্তরঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন খাদ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মোল্লা জালাল, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবু জাফর সূর্য, আওয়ামী লীগ নেতা এ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, অভিনেত্রী অরুণা বিশ্বস, কণ্ঠ শিল্পী এস ডি রুবেল, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা, সাংবাদিক রফিকুল ইসলাম রনি, সমীরণ রায়, আওয়ামী লীগ নেতা শাহ আলম, মিজানুর রহমান বিটু, বৃষ্টি রানী সরকার, জোটের কেন্দ্রিয় কার্যনির্বাহী সদস্য আলহ্জ্বা শেখ শাহ আলম প্রমুখ। 


হাছান মাহমুদ বলেন, ছাত্রদের আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য সাংবাদিকদের ওপর যারা হামলা ও নির্যাতন করেছে, তাদের সরকার খুজে বের করে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করবে। ড. কামলা হোসেনকে ১/১১-এর কুশিলব আখ্যায়িত করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ড. কামাল হোসেনরা ১/১১-এর কুশিলব। তারা এখন আরেকটি ১/১১-এর ষড়যন্ত্র করছে। তারা দেশকে উত্তপ্ত করার চেষ্টা করছে। কিন্তু আওয়ামী লীগ ভিমরুলের চাক। এখানে ঢিল মারলে সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে তা মোকাবেলা করতে জানে। শুধুমাত্র আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে এখনও আমরা কিছু বলিনি। তবে যারা এখনও ষড়যন্ত্র করছে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে।


তিনি বলেন, ছাত্র আন্দোলনকে কেন্দ্র করে যারা ষড়যন্ত্র করেছে। ইতোমধ্যে তাদের অনেককেই গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি যারা আছেন তাদেরও আইনের আওতায় আনা হবে। যারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উস্কানি দিয়েছেন তাদেরও চিহ্নিত করে বিচার করা হবে।আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও খাদ্যমন্ত্রী এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেন, ছাত্র আন্দোলনকে বিপদগামী করার প্রচেষ্টা যারা করেছিল, তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে, তাদের বিচার করা হবে।

এছাড়াও সাংবাদিকদের ওপরও যারা হামলা করেছে তাদেরও আইনের আওতায় এনে বিচারের ব্যবস্থা করা হবে। এমনকি ভবিষ্যতে এমন কোনো ঘটনা ঘটানোর কেউ চেষ্টা করলে তাৎক্ষনিক বিচারের ব্যবস্থা করা হবে।সুজন সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদারের সমালোচনা করে তিনি বলেন, সুজন সম্পাদকের বাসায় মার্কিন যুক্ত রাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত বার্নিকাটকে নৈশ ভোজের দাওয়াত দিয়েছিলেন। আসলে এটি নৈশ ভোজের দাওয়াত নয়। এটি ছিল ষড়যন্ত্র। এই ষড়যন্ত্রের সঙ্গে যেসব এনজিও রয়েছে, তাদের তহবিলের তদন্ত হওয়া উচিত। তদন্তের মাধ্যমে আইনের আওতায় আনা উচিত।


০৮-০৮-২০১৮ ০৫:৫৯ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 293 বার দেখা হয়েছে।

পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ

চৌহালী নিউজঃ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

নির্বাচিত খবরসমুহ
কাজিপুর : আরো খরবসমুহ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত
ফেসবুকে চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ফোকাস
বিজ্ঞাপন

স্পন্সরড অ্যাড

ভিজিটর সংখ্যা
100
১৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১০:৩০ পূর্বাহ্ন