কাজিপুরে সোনামুখী হাটের রাস্তায় ব্যবসায়ীদের ধানের চারা রোপন||চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ওয়েবসাইটে স্বাগতম | যোগাযোগ : ০১৭৭৯-১১৭৭৪৪
১৭ আগস্ট, ২০১৮ ০৩:২৪ অপরাহ্ন       রেজিষ্টার করুন | লগইন    

কাজিপুর: জনদুর্ভোগ

কাজিপুরে সোনামুখী হাটের রাস্তায় ব্যবসায়ীদের ধানের চারা রোপন
নিউজরুম ০৭-০৮-২০১৮ ০৬:০৯ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ


ফাইল ছবি

কাজিপুর প্রতিনিধি ঃ সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার ঐহিত্যবাহী সোনামুখী হাটে প্রবেশের মূল রাস্তায় ব্যবসায়ীরা ধানের চারা রোপন করে অভিনব প্রতিবাদ জানিয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুরে ব্যবসায়ীরা হাটের রাস্তার মন্দির সংলগ্ন স্থানে ধানের চারা রোপন করেন। সরেজমিন গিয়ে ও ব্যবসায়ীদের সূত্রে জানা গেছে, এককালের বন্দরনগরী সোনামুখী হাটটি এখনও কাজিপুরের মধ্যে বড় হাট। এই হাটকে কেন্দ্র করে সোনালী ব্যাংক, গ্রামীণ ব্যাংক, ডাচবাংলা এজেন্ট ব্যাংক, ইউনিয়ন ভূমি অফিস, শিখা সার্বজনিন দুর্গা মন্দিরসহ বহু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। সপ্তাহে দুইদিন হাটবারে প্রায় কয়েকহাজার লোকের সমাগম ঘটে।

 

এই হাটে প্রবেশের পশ্চিমাংশের মূল রাস্তাটি কয়েক বছর যাবৎ বর্ষাকালে পানি আটকে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। কারণ নদীমুখে স্টেডিয়াম নির্মাণ করায় পানি নিষ্কাশনের আর কোন ব্যবস্থা নেই। নেই কোন ড্রেনেজ সিস্টেম। ফলে বর্ষায় ওই রাস্তা হাটু পরিমান পানিতে তলিয়ে যায়। জনসাধারণকে প্রয়োজনে পানি ও কাদা মাড়িয়ে হাটের ভিতরে প্রবেশ করতে হয়।  বিষয়টি সোনামুখী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান রাশেদ কবির চান্দু এবং বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান আ.লীগ নেতা শাহজাহান আলী খানকে সরেজমিনে নিয়ে এসে ব্যবসায়ীরা দেখিয়েছেন। কিন্তু কোন সুরাহা হয়নি। কাজিপুরের সাবেক এমপি তানভীর শাকিল জয়কে বিষয়টি অবগত করেন ব্যবসায়ীরা।

 

কিন্তু এখনও কোন কার্যকর ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। বাজারের ব্যবসায়ী শাহ আলম জানান, গত সপ্তাহে  বিষয়টি স্মাস্থ্যমন্ত্রি মোহাম্মদ নাসিমকে অবহিত করেছি। তিনি যদি দৃষ্টি দেন তবে আমরা এই সমস্যার হাত থেকে রক্ষা পাবো। শিখা মন্দিরের সেবক উত্তম কর্মকার জানান, পানি না শুকালে সামনের বড় পুজা করা আমাদের জন্যে কষ্টকর হয়ে যাবে। ওষুধ ব্যবষায়ী সামিদুল ইসলাম জানান, সামনে কোরবানির ঈদ। এসময়  দোকানের সামনের রাস্তায় পানি জমে থাকায় লোকজন চলাচল করতে না পারায় আমাদের ব্যবসায় দারুণ ক্ষতি হতে। কর্তৃপক্ষ অতি দ্রুত এই রাস্তার পাশে ড্রেন নির্মাণ করে পানি নিষ্কাশনের  ব্যবস্থা করবেন এমন দাবী জানিয়েছেন ব্যবসায়ী ও এই রাস্তায় চলাচলরত হাটুরেরা।

 


০৭-০৮-২০১৮ ০৬:০৯ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 85 বার দেখা হয়েছে।

পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ

চৌহালী নিউজঃ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

নির্বাচিত খবরসমুহ
কাজিপুর : আরো খরবসমুহ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত
ফেসবুকে চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ফোকাস
বিজ্ঞাপন

স্পন্সরড অ্যাড

ভিজিটর সংখ্যা
100
১৭ আগস্ট, ২০১৮ ০৩:২৪ অপরাহ্ন