উল্লাপাড়ায় পরিত্যক্ত ভবনে ঝুঁকি নিয়ে ক্লাস করছে ৪ শতাধিক শিক্ষার্থী||চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ওয়েবসাইটে স্বাগতম | যোগাযোগ : ০১৭৭৯-১১৭৭৪৪
২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ১০:৩৩ অপরাহ্ন       রেজিষ্টার করুন | লগইন    

উল্লাপাড়া: জনদুর্ভোগ

উল্লাপাড়ায় পরিত্যক্ত ভবনে ঝুঁকি নিয়ে ক্লাস করছে ৪ শতাধিক শিক্ষার্থী
নিউজরুম ০৫-০৮-২০১৮ ০৭:৩৯ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ


ফাইল ছবি

 রায়হান আলীঃ উল্লাপাড়ার বন্যাকান্দি এন.এম উচ্চ বিদ্যালয়ের একটি পুরানো দ্বিতল ভবণ ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। প্রায় প্রতিদিনই শ্রেণি কক্ষের ছাদের প্লাস্টার খুলে পড়ে আহত হচ্ছে শিক্ষার্থীরা। উপজেলা শিক্ষা প্রকৌশল বিভাগ এই শ্রেণি ভবণটি ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষনা করে এটি ব্যবহার বন্ধের পরামর্শ দিয়েছে। কিন্তু তারপরেও এই ভবনে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ক্লাস করছে প্রায় ৪ শতাধিক শিক্ষার্থী। </p><p> স্কুলের প্রধান শিক্ষক গোলাম মওলা ও স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি জয়নুল আবেদীন জানান, ১৯৮৪ সালে এই স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা পরিবারের সদস্যগন এবং স্থানীয় শিক্ষানুরাগী স্বচ্ছল ব্যক্তিদের আর্থিক সহযোগিতায় ৮৫ ফুট �দৈর্ঘ ও ১৫ ফুট প্রস্থের এই ভবণটি নির্মাণ করা হয়। সময়মত প্রয়োজনীয় অর্থের যোগান না পাওয়ায় পরিকল্পনা মাফিক তখন ভবণটি যথাযথভাবে নির্মাণ করা সম্ভব হয়নি। ফলে এর স্থায়ীত্ব কমে গেছে। </p><p> প্রধান শিক্ষক জানান, চলতি বর্ষা মৌসুমে অতিরিক্ত বৃষ্টির কারণে একতলা দোতলা ছাদ ড্যাম্প হয়ে গেছে। গত এক মাসে বিভিন্ন শ্রেণির ছাদে প্লাস্টার খুলে পড়ে অন্তত ২০জন শিক্ষার্থী আহত হন। বর্তমানে স্কুলে ৯২০জন শিক্ষার্থী পড়ালেখা করছে। এদের মধ্যে এই ভবনে বিভিন্ন শ্রেণি শাখার প্রায় ৪শ শিক্ষার্থী ক্লাস করছে। এসব শিক্ষার্থীর অভিভাবকগণ তাদের সন্তানদেরকে ভয়ে স্কুলে পাঠাতে চাচ্ছেন না । বৃষ্টির দিন হওয়ায় বাইরে স্কুল অঙ্গনে ক্লাস নেওয়া সম্ভব হচেছ না। ফলে নিরুপায় হয়ে এসব শিক্ষাথীকে ঝুঁকি নিয়েই কথিত ভবনে ক্লাস করতে হচ্ছে। আর এতে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকগণ চরম উৎকন্ঠার মধ্যে পড়েছেন। প্রধান শিক্ষক বিষয়টি সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছেন। </p><p> উক্ত স্কুল ভবনের এই সংকটপূর্ণ অবস্থা দেখতে ইতোমধ্যেই উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আরিফুজ্জামান,উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম ও উপজেলা শিক্ষা প্রকৌশল বিভাগের প্রকৌশলী সালমান ফারসী পৃথকভাবে স্কুলটি পরিদর্শণ করেছেন। শিক্ষা প্রকৌশলী এই ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা করে এটি ব্যবহার না করার নির্দেশ দিয়েছেন। </p><p> ৭ ম শ্রেণীর ছাত্রী পূজা বালা জানান একটু বৃষ্টি নামলে ছাদ থেকে পানি পড়ে বই ভিজে যায়।ছাদ থেকে খোয়া বালি খসে পরছে, আমাদের ক্লাসরুম না থাকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এখানেই ক্লাস করছি। </p><p> উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আরিফুজ্জামান জানান, তিনি বন্যাকান্দি স্কুলের ঝুঁকিপূর্ণ এই ভবনটি অবিলম্বে সংস্কারের ব্যবস্থা নিতে উপজেলা শিক্ষা প্রকৌশল বিভাগকে নির্দেশ দিয়েছেন। 


০৫-০৮-২০১৮ ০৭:৩৯ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 410 বার দেখা হয়েছে।

পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ

চৌহালী নিউজঃ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

নির্বাচিত খবরসমুহ
উল্লাপাড়া : আরো খরবসমুহ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত
ফেসবুকে চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ফোকাস
বিজ্ঞাপন

স্পন্সরড অ্যাড

ভিজিটর সংখ্যা
100
২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ১০:৩৩ অপরাহ্ন