৭৫ বছরেও দুঃখ ঘোঁচেনি আফাজ আলীর!||চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ওয়েবসাইটে স্বাগতম | যোগাযোগ : ০১৭৭৯-১১৭৭৪৪
১৫ আগস্ট, ২০১৮ ১০:৪৫ পূর্বাহ্ন       রেজিষ্টার করুন | লগইন    

উল্লাপাড়া: ফেসবুক থেকে নির্বাচিত

৭৫ বছরেও দুঃখ ঘোঁচেনি আফাজ আলীর!
অনলাইন নিউজ এডিটর ১৯-০৭-২০১৮ ০৩:০১ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ


৭৫ বছরেও দুঃখ ঘোঁচেনি আফাজ আলীর!

সারাদিনের কর্মব্যস্ততা সেরে সহকর্মি কামাল আহমেদ ও রিপোর্টার্স ইউনিটের সাংবাদিকদের সাথে আজ দুপুরে চা খাচ্ছিলাম উন্মুক্ত মঞ্চের সামনে বাবুর চা-স্টলে এসময় আমার ক্যামেরাপার্সন কামাল আহমেদ আমাকে উদ্দেশ্য করে বলছিল ভাই দেখছেন “ভাঙ্গা রিকসা মেরামতের টাকাও হয়তো নেই লোকটির” লক্ষ্য করে দেখলাম তীব্র রৌদের তাপ উপেক্ষা করেই বয়-বৃদ্ধ এক ব্যক্তি গুনা পেঁচিয়ে রিকসার ভাঙ্গা হুড় ঠিক করার চেষ্টা করছে। ডাক দিয়ে কাছে বসিয়ে শুনলাম তার জীবনের গল্প...!


সঠিক জন্ম তারিখ না বলতে পারলেও ধারনা অনুযায়ী তার বয়স ৭৫-৭৭ মুক্তি যুদ্ধের আগে তিনি উল্লাপাড়ার বিভিন্ন স্কুলে বরফ বিক্রি করতেন এরপর বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মানুষের বাড়িতে রাখালের কাজ করেছেন। ৭১ এ দেশ স্বাধীন হওয়ার পর শুরু করেন রিকশা চালানো বিবাহিত জীবনে তিনি ২ ছেলে ২ মেয়ে সহ ৪ সন্তানের জনক কিন্ত দুঃখের কপাল হলে যা হয় ছেলেরা কেউ ভাত কাপড় দেয় না তাই পেটের দায়ে এখনও তিনি সে পেশাতেই আছেন। কখনও অসুস্থ্য হয়ে বিছানায় পরে থাকলেও ছেলেরা তার খোঁজ নেয়না এ কথা বলতে গিয়ে তিনি কিছুটা অশ্রুসিক্ত হয়ে পরেন। খোদা ভীরু এই আফাজ আলী ৫ ওয়াক্ত জামায়েতের সাথে নামাজ আদায় করেন  বেশিরভাগ সময় তিনি কেন্দ্রীয় মসজিদে নামাজ পরেন। ফজরের নামাজের পর সকালের নাস্তা সেরে বের হন রিকসা নিয়ে ভাঙ্গা রিকসা এবং তাকে দেখে কেউ তার রিকসায় চড়ে না তাই বলে তিনি থেমে থাকেন না কারন বৃদ্ধ স্ত্রীকে নিয়ে পেটের আহার যোগাতে দৈনিক নুন্যতম ৭০ টাকা তার প্রয়োজন তাই পৌর হাট-বাজারের বিভিন্ন দোকানীদের বাড়ির বাজার পৌছে দেওয়া দুপুরে ভাতের বাটি এনে দেওয়া এসব করেই সারাদিনে ৯০-১২০ টাকা আয় করা সম্ভব হয় তার কিন্তু বিপাকে পরেন বৃষ্টির দিনে। 


প্রায় বিশ বছর আগে ৩ হাজার টাকা দিয়ে ওই রিকসাটি কিনেছিলেন বর্তমানে রিকসাটির অবস্থা বড়ই নাজুক সারাদিনে যা রোজগার হয় তা দিয়ে তিনি সোঁয়া কেজি চাউল,ডিম,আলু, কাঁচামরিচ এসব কিনে বাড়ি ফেরেন। তাই ভাঙ্গা রিকসাটি মেরামতের সামর্থ্য তার হয়না এজন্যই তিনি ভাঙ্গা হুড় গুনা দিয়ে পেচিঁয়ে সারার চেষ্টা করছিলেন বলে জানান। 


কিন্তু এভাবে আর কতদিন এ প্রশ্নের উত্তর তার জানা নেই। তার জন্য কি করলে তিনি মোটামুটি ভালভাবে চলতে পারবেন এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন ৬০ হাজার টাকা হলে আমি একটি আবাদি জমি রেখে সেটা দিয়ে চিন্তামুক্ত হয়ে ভালভাবে দিন চালাতে পারব।


উল্লেখ্য, এর আগে সাংবাদিক মামুন বিশ্বাস ভাইয়ের মাধ্যমে দেশ-বিদেশ থেকে ফেসবুক বন্ধুদের পাঠানো টাকা দিয়ে চালা গ্রামের শামসুল নামের ৮০ বছরের এক বৃদ্ধ রিকসা চালককে আমরা দোকান করে দিয়েছি। এবারও একই পরিকল্পনা আছে যদি কেউ আফাজ আলীকে সহযোগিতা করতে চান তবে নিচের নাম্বারে যোগাযোগ করতে পারেন যারা টাকা পাঠাবেন তাদের নাম ও টাকার পরিমান ফেসবুকে পোষ্ট দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হবে।  


আফাজ আলীর ঠিকানা: ভদ্রখোল মধ্যপাড়া,সদর ইউনিয়ন, উল্লাপাড়া, সিরাজগঞ্জ। 
যোগাযোগ: ০১৭১৭-৮৬ ৫০২০ (শিশির আলম) 


সাংবাদিক  Sisir Alam এর ফেসবুক প্রোফাইল থেকে...


১৯-০৭-২০১৮ ০৩:০১ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 241 বার দেখা হয়েছে।

পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ

চৌহালী নিউজঃ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

নির্বাচিত খবরসমুহ
উল্লাপাড়া : আরো খরবসমুহ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত
ফেসবুকে চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ফোকাস
বিজ্ঞাপন

স্পন্সরড অ্যাড

ভিজিটর সংখ্যা
100
১৫ আগস্ট, ২০১৮ ১০:৪৬ পূর্বাহ্ন