ইউনিয়ন পরিষদের বিদ্যুৎ বিল বকেয়া, সংযোগ বিচ্ছিন্ন, তথ্য সেবা কেন্দ্র অচল||চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ওয়েবসাইটে স্বাগতম | যোগাযোগ : ০১৭৭৯-১১৭৭৪৪
১৮ আগস্ট, ২০১৮ ১২:১৯ অপরাহ্ন       রেজিষ্টার করুন | লগইন    

শাহজাদপুর: অন্যান্য

ইউনিয়ন পরিষদের বিদ্যুৎ বিল বকেয়া, সংযোগ বিচ্ছিন্ন, তথ্য সেবা কেন্দ্র অচল
অনলাইন নিউজ এডিটর ১০-০৭-২০১৮ ০৮:১১ অপরাহ্ন প্রকাশিতঃ


ইউনিয়ন পরিষদের বিদ্যুৎ বিল বকেয়া, সংযোগ বিচ্ছিন্ন, তথ্য সেবা কেন্দ্র অচল

শাহজাদপুর প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর  উপজেলার বেলতৈল  ইউনিয়ন পরিষদে বিদ্যুৎ সংযোগ নেই ১২  দিন হলো।৬৫ হাজার টাকা  বিল বকেয়া থাকায় গত ২৮ জুন ইউনিয়ন পরিষদের বিদ্যুৎ সংযোগটি বিচ্ছিন্ন করে দেয় পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি।


এতদিন ধরে বিদ্যুৎ না থাকায় ভোগান্তিতে পড়েছেন সেবা নিতে আসা সাধারণ মানুষ। বর্তমান সরকার ইউনিয়ন পরিষদকে ডিজিটাল করতে অনেক ইতিবাচক উদ্যোগ নিয়েছে। এ জন্য চালু করা হয় ইউনিয়ন তথ্যসেবা কেন্দ্র। আর ইউনিয়ন পরিষদের বেশিরভাগ কাজ এখন তথ্যসেবা কেন্দ্র থেকেই করা হয়। কিন্তু বেলতৈল  ইউনিয়ন পরিষদে দীর্ঘদিন ধরে বিদ্যুৎ সংযোগ না থাকায় তথ্যসেবা কেন্দ্রের কম্পিউটার, প্রিন্টার ও ক্যামেরাসহ সব বিদ্যুৎ চালিত যন্ত্র অচল হয়ে পড়ে রয়েছে। এতে থমকে আছে ইউনিয়নের কাজকর্ম।


ইউনিয়ন অফিসের একটি রুম ভুমি অফিস ব্যবহার করেন। সেখানে গিয়ে দেখা যায় অন্ধকারে কাজ করছে সবাই। কথা হয় ভুমি অফিসের নায়েব মাহবুবুল হোসেন তিনি  জানান আমি প্রতিমাসে ৩০০ টাকা করে সচিব সাহেবের কাছে দেই তবু আমরা এখন অন্ধকারে আছি। 


মঙ্গলবার  (১০ ) জুলাই  সকাল ১১ টায় ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে দেখা যায়, পরিষদ সচিব গোলাম কিবরিয়া রাসেলের রুম ও তথ্য সেবা কেন্দ্র তালাবন্ধ।


শুধুমাত্র চেয়ারম্যানের রুম খোলা  ফ্যান না চলায় প্রচণ্ড গরমে ঘামছেন তিনি।এই প্রতিনিধি যাওয়ার পর খবর পেয়ে ১২ টার দিকে অফিসে চলে আসেন সচিব।ভুক্তভোগীদের দাবী সচিব নিজের ইচ্ছামত চলেন।  সচিবের সাথে কথা হলে জানান আগামী ২/৩ দিনের মধ্য বিল পরিশোধ করা হবে। 


ইউনিয়ন পরিষদের ডিজিটাল তথ্যসেবা কেন্দ্রের উদ্যোক্তা মাসুদ  জানান, বিদ্যুৎ না থাকায় তাদের কাজের খুব সমস্যা হচ্ছে। প্রতিদিনই কেউ না কেউ সেবা নিতে এসে না পেয়ে ফিরে যাচ্ছেন। অফিসের কম্পিউটার, প্রিন্টারগুলো অচল হয়ে পড়ে আছে।


ইউনিয়ন পরিষদে সেবা নিতে আসা বেশ কয়েকজন জানান  ৩/৪  দিন ধরে ঘুরেও একটি কম্পিউটারাইজড ‘জন্ম নিবন্ধন’ নিতে পারিনি। এভাবে প্রতিদিন অনেক লোক সেবা না পেয়ে ফিরে যাচ্ছেন।আবার বেশিভাগ সময়  সচিব  সকাল ১১ টার আগে পরিষদে আসে না। 


ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফেরদৌস হোসেন ফুল   বকেয়া বিলের বিষয়ে জিজ্ঞেস করলে তিনি দায় এড়িয়ে  বলেন, ‘আমরা আগামী সপ্তাহে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করে দিবো । তারা সংযোগ লাগিয়ে দিবে।‘


খুকনী সাব জোনাল অফিসের  সহকারী জেনারেল ম্যানেজার  মীর নুর মোহাম্মদ  জানান,বেলতৈল  ইউনিয়ন পরিষদের কাছে ৬৫ হাজার টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া রয়েছে। চেয়ারম্যান সাহেব বেশ কয়েক বার সময় নিয়েও বকেয়া বিল না দেওয়ায় গত ২৮ জুন  তাদের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।


শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমুল হুসাইন খান জানান,  ইউনিয়ন পরিষদের বিদ্যুৎ  সংযোগ বিচ্ছিন্ন আমার জানা ছিল না যেহেতু এখন জানলাম আমি খুব দ্রুত চেয়ারম্যান কে নির্দেশ দিবো বিল পরিশোধ করার জন্য। 


১০-০৭-২০১৮ ০৮:১১ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে এবং 161 বার দেখা হয়েছে।

পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ

চৌহালী নিউজঃ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

নির্বাচিত খবরসমুহ
শাহজাদপুর : আরো খরবসমুহ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত
ফেসবুকে চৌহালী নিউজঃ
চৌহালী নিউজঃ ফোকাস
বিজ্ঞাপন

স্পন্সরড অ্যাড

ভিজিটর সংখ্যা
100
১৮ আগস্ট, ২০১৮ ১২:১৯ অপরাহ্ন